পঞ্চম বর্ষ / নবম সংখ্যা / ক্রমিক সংখ্যা ৫১

শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৭

বিপ্লব গঙ্গোপাধ্যায়

দৃষ্টির জাদুপথ

তোমার দৃষ্টি থেকে সরে যাচ্ছে আমার পোশাক
ভেতরে ভেতরে ঘুণ

হাড়ের আঙিনা জুড়ে
বায়ুর বলয়সন্ধি
যেভাবে গড়েছি এক মহাকাশ
নক্ষত্রদ্যোতনা 
ঝড়ে সব লন্ডভন্ড
বেআব্রু সকাল

এই পথ পায়ে পায়ে চলাচল
যা ছিল নির্জন  তীব্র তপস্যাপ্রবণ

আলোর দৃষ্টিমন্ত্রে জাদুদরজা খুলে দিচ্ছে পথ


শাদা বাড়ির দরজা জানালা

মেঘ থেকে স্তরীভূত জলের উপদ্রব
সুরভিত করে তুলছে ঘরবাড়ি
যেন স্নানঘর
একলা আকাশ নিয়ে নগ্নতায় নেমে এলো কেউ

ঢেউ ওঠে
শাদাবাড়ি
বন্ধ জানালা দরজা
চুপচাপ বসে আছে নিরিবিলি  শব্দটির পাশে


সঞ্চারপথ

গ্রন্থমলাট পেরিয়ে
চলে যাচ্ছি দূরে
গভীর গভীরতর অনুভবদেশে
শব্দের ছবিগুলি গেঁথে আছে
স্নায়ুবীজে, কেউ বয়ে নিয়ে যাচ্ছে হাওয়া
চিত্রিত আঁচল
চৈতন্যের সিঁড়ি দিয়ে ক্রমাগত পথ
অনন্তগর্ভা এই অক্ষরজরায়ু
নতুন জন্মের ঋতু কৌটো খুলে
নিয়ে এলো অসীম ভুবন
চোখের ছায়ায়
দূরবীনে চোখ রেখে নির্জনতা
এ ভিড়ে কতদূর প্রসঙ্গসীমার মধ্যে
আলোচিত হবে?
ভুলে যাওয়া সংকল্প আবার কি মনে পড়ল ঘরময়
ধোঁয়ার ভেতর?
মীমাংসাবিহীন সেই আলোচনা থেমে আছে চোখের ছায়ায়
পরবর্তী দৃশ্যে আজ
তুলে আনো, মাস্তুলের পাখি।  



0 কমেন্টস্:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন