পঞ্চম বর্ষ / নবম সংখ্যা / ক্রমিক সংখ্যা ৫১

শুক্রবার, ১ ডিসেম্বর, ২০১৭

মৃণালিনী

বস্ত্র হরণের পরে

(১) 

বিষেশ্য পদকে চিরে দেখেছি 
একটি পুরুষ খুঁজে পাইনি 
বাবার ছায়া দাদার ছাতা ভাইয়ের কিচিরমিচির
'
বন্ধু' রূপের খোলসে আলো অন্ধকারের সঙ্গম।
সবই দেখেছি...
একটি পুরুষ খুঁজে পাইনি!

(২)

মাটির গর্ভে জল
আকাশে জমাট মেঘেদের ঘোরাফেরা 
চারপাশে মধুলোভী ভ্রমরা
সমাজে ছালে গুটিয়ে শুঁয়োপোকা
সবই দেখেছি...
পাইনি পাইনি পাইনি...
একটি পুরুষ খুঁজে পাইনি!


(৩)

কামুক দেখেছি, 
দেখেছি ধর্ষক, বানিয়া, দালাল স্ত্রৈন
গান্ধীজি নয়, গান্ধীছাপ কাগুজে মায়ায় মশগুল
অশোক উহ্য-অশোকস্তম্ভের খোদাই আট আনা-এক-দুই 
কচি হাতে ঝনঝনে বিরাট পাহাড় শেষে বিস্ফোরণ 
ছিন্ন ভিন্ন মাংসপিণ্ড 
গোল মরিচের ঘোরাঘুরি
একটি খোঁজে পুরুষ 
পুরুষ কোথায়?

(৪)

জাঙ্গিয়ার ফুটো সেলাইয়ে প্যান্টি 
প্যান্টিও অক্ষম যোনির পর্দায়
গুটিরেশম ক্লান্ত 
আঙুলের ঘষা চেন ওঠা নামায়
তাই, প্যান্টি ফুটো হয়ে জাঙ্গিয়াতে দাঁড়ায়!

(৫)

হে নীলকন্ঠ 
সৃষ্টি স্হিতি ধ্বংসের সেতুতে 
জন্ম দাওনি একটি পুরুষ!
যোনিগর্ভ দেব
যদি দাও একটি পুরুষ
দিতে পারি দশমাস দশদিনের অন্ধকার!
এক অদ্বিতীয় তুমি; পুরুষ
রুদ্র তুমিও তো 
তুমিও তো অর্ধনারীশ্বর!
পুং লিঙ্গ ধারণে লুপ্ত সুপ্ত ইগোর ধারায়
পুরুষ কোথায়?

সব দেখেছি...
একটি পুরুষ খুঁজে পাইনি!
পুরুষ কোথায়?

Top of Form


0 কমেন্টস্:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন